ভারতের রাজধানী দিল্লীর একটি কোভিড-১৯ কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে ১৪ বছরের এক কিশোরী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এই ঘটনা ঘটিয়েছে ওই সেন্টারে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন থাকা করোনা আক্রান্ত আরেক রোগী। খবর বিবিসির।

দিল্লী পুলিশ জানিয়েছে, এ ঘটনায় ১৯ বছর বয়সী এক কিশোরসহ দুইজনকে বৃহস্পতিবার গ্রেফতার করা হয়েছে। ১০ হাজার বেডের সুবিধা সম্পন্ন ভারতের সবচেয়ে বড় ওই কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে তারা তিনজন ভর্তি ছিলেন। আর বৃহস্পতিবার এই ঘটনার অভিযোগ জানা গেলেও ১৫ জুলাই ঘটনাটি ঘটেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তা পারভিন্দর সিংহ জানিয়েছেন, অভিযুক্তদের গ্রেফতার করার পর তাদের বিচারিক হেফাজতে নেয়। কিন্তু করোনা সংক্রমণ থেকে মুক্ত না হওয়া পর্যন্ত তাদের কোয়ারেন্টাইনেই রাখা হবে। এ ঘটনায় আরও তদন্ত করা হবে বলেও জানান তিনি।

তবে, ভারতে কোয়ারেন্টাইনকালীন এটিই প্রথম কোন ধর্ষণের ঘটনা না। এর আগে গত সপ্তাহেই মুম্বাইয়ের এক সেন্টারে কোয়ারেন্টাইনে থাকাকালীন এক নারী ধর্ষণের অভিযোগ করেছিলেন। ওই ঘটনাতেও একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।